বৃহস্পতিবার, মে ২৪, ২০১৮, ৪:৫২ অপরাহ্ণ

নিউজ মিডিয়া ২৪:  ঢাকা:  বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার কারাবরণকে দীর্ঘায়িত করার জন্য অ্যাটর্নি জেনারেল অযথা সময়ক্ষেপনের অভিযোগ এনেছেন তার আইনজীবী অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন।
বিচারপতি এ কে এম আসাদুজ্জামান ও বিচারপতি জে বি এম হাসানের হাইকোর্ট বেঞ্চে খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন শুনানির জন্য কার্যতালিকায় ছিল। দুটি মামলা কার্যতালিকার ৫ ও ৬ নম্বরে ছিল। সেই অনুযায়ী বেলা সাড়ে ১১টার দিকে মামলাটি শুনানির জন্য সিরিয়ালে আসলেও অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম দুপুর ২টা পর্যন্ত সময় চান। সে অনুযায়ী আদালত শুনানির জন্য দুপুর ২টার পর সময় নির্ধারণ করেন। তাই খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেন, এ বিষয়ে আমাদের দুর্ভাগ্য খালেদা জিয়ার কারাবরণকে দীর্ঘায়িত করার জন্য অযথা সময়ক্ষেপণ করছেন।
মামলার বিষয়ে তিনি বলেন, অভিযোগে বলা হয়েছে খালেদা জিয়া অবরোধ কর্মসূচি দিয়েছিলেন সেই কারণেই বাসে কর্মীরা হাঙ্গামা করেছে এবং সেখানে পেট্রোল বোমা মারা হয়েছে। এভাবে লোক মারা হয়েছে। কিন্তু এজাহারে বেগম খালেদা জিয়া সম্পর্কে এটুকুই বলা হয়েছে।
তিনি বলেন, যেহেতু খালেদা জিয়ার নাম এজাহারে ছিল না, পরবর্তীতে তার নাম ৭৭ জন আসামির মধ্যে ৫১ নম্বরে এসেছে। তার বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট পরোয়ানা নেই। তারপরও ফৌজদারী কার্যবিধিতে ৪৯৭ ধারায় বলা হয়েছে, যেক্ষেত্রে আসামির মৃত্যুদণ্ড বা যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হতে পারে সেক্ষেত্রেও যদি নারী হয়, অসুস্থ হয় বা অল্প বয়স্ক হয় তাকে জামিন দেওয়া যায়। এইক্ষেত্রে খালেদা জিয়াকে জামিন না দেওয়ার আইনগত বিধান নাই, তাই আশা করি আমরা  জামিন পাব।