রবিবার, মে ২৭, ২০১৮, ১২:২৮ পূর্বাহ্ণ

নিউজ মিডিয়া ২৪: ডেস্ক: একটি টিভি প্রামাণ্যচিত্রে শীর্ষস্তরের ক্রিকেট খেলা নিয়ে কিছু দুর্নীতির অভিযোগ ওঠার পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সংস্থা আইসিসি এর তদন্ত শুরু করেছে।

ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়াসহ বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় কিছু টেস্ট ক্রিকেট দলকে জড়িত করে ওই দুর্নীতির ঘটনা ঘটেছে বলে ওই প্রামাণ্যচিত্রে আনা অভিযোগে বলা হয়।

আল-জাজিরা টিভিতে এ প্রামাণ্যচিত্রটি প্রচার হবার কথা।

টিভি চ্যানেলটি বলছে, তাদের প্রামাণ্যচিত্রে তথ্য প্রমাণ থাকবে যে – ম্যাচ পাতানোতে সহায়তার জন্য গল শহরের মাঠের পিচে কিছু পরিবর্তন আনতে রাজী হয়েছিলেন শ্রীলংকার একজন গ্রাউন্ডসম্যান ।

অস্ট্রেলিয়ার একটি সংবাদপত্র বলছে, আল-জাজিরার ওই প্রামাণ্যচিত্রে দেখানো হবে যে কিভাবে জুয়াড়িরা – যাদের বলা হয় স্পট ফিক্সার – শ্রীলংকায় ক্রিকেট ম্যাচ প্রভাবিত করার চেষ্টা করেছিল।

বলা হয়, ২০১৬ সালে অস্ট্রেলিয়ানদের বিরুদ্ধে একটি ম্যাচের সময় তিনি এ কাজ করেছিলেন – যাতে অস্ট্রেলিয়া মাত্র তিন দিনের মধ্যে খুব বাজেভাবে হেরে গিয়েছিল।

রিপোর্টে বলা হয়, ২০১৬ সালে গলে সফররত অস্ট্রেলিয়া ও শ্রীলংকার মধ্যেকার দ্বিতীয় টেস্টের সময় ওই গ্রাউন্ডসম্যানকে পিচের অবস্থা বদলে দেবার জন্য ঘুষ দেয়া হয়েছিল।

এ ছাড়া ওই একই মাঠে ইংল্যান্ড ও ভারতের খেলাগুলোকেও এ জন্য টার্গেট করা হয়েছিল বলে রিপোর্টে বলা হয়।

শ্রীলংকার ক্রিকেট কর্তৃপক্ষ বলছে, তারা আজ শনিবার আরো পরের দিকে এ ব্যাপারে একটি বিবৃতি দেবে।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সংস্থা আইসিসি বলছে, এই কথিত ষড়যন্ত্রের তদন্ত ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে।

এর আগে ২০১০ সালে ইংল্যান্ডের লর্ডস মাঠে এক টেস্ট ম্যাচে স্পট ফিক্সিংএর জন্য তিনজন পাকিস্তানি খেলোয়াড়ের কারাদন্ড হয়েছিল।