গাছে ঝুলে বিয়ের ছবি, ভাইরাল সোশাল মিডিয়ায়

নিউজ মিডিয়া ২৪:  ডেস্ক: পছন্দমতো ছবি তুলতে একজন আলোকচিত্রী কতটা বেপরোয়া হয়ে উঠতে পারেন, তা হয়তো ভারতের ভিষ্ণু হোয়াইট রাম্পকে না দেখলে কেউ বুঝতে পারবেন না।
ভিষ্ণু একজন ওয়েডিং ফটোগ্রাফার। বেশিরভাগ সময়ে তিনি বিয়ের ছবি তোলেন। আর সেক্ষেত্রে নিখুঁত ছবি তুলতে গিয়ে তিনি সবটুকু চেষ্টা করেন বলে জানিয়েছেন।
এবার এক নবদম্পতির জীবনের বিশেষ দিনের কিছু মুহূর্তের ছবি তুলতে গিয়ে তাকে গাছে উঠে উল্টোভাবে ঝুলতে হয়েছে।
দম্পতিকে গাছের নিচে দাঁড় করিয়ে তিনি সোজা গাছের ওপরে ওঠে যান। এর পর দুটো পা গাছের ডালে পেঁচিয়ে নিচের দিকে মাথা দিয়ে বানরের মতো ঝুলে ছবি তোলেন তিনি।
তার উদ্দেশ্য ছিল অসাধারণ একটি অ্যাঙ্গেলে ওই দম্পতিকে একটি ফ্রেমের ভেতরে তুলে আনা।
ছবি তোলা শেষ হয়ে গেলে তিনি তার ক্যামেরা তুলে দেন বরের হাতে। তারপর একজন দক্ষ অ্যাক্রোব্যাটের মতো লাফ দিয়ে তিনি গাছ থেকে নেমে আসেন মাটিতে।
এই পুরো ঘটনাটি একটি ভিডিওতে ধরা পড়েছে এবং সেটি পোস্ট করা হয়েছে টুইটারে। তারপর সেটি ছড়িয়ে পড়েছে ইন্টারনেটে। একজন মজা করে মন্তব্য করেছেন এভাবে- অপরাধের সঙ্গে লড়াই করতে গিয়ে যার স্পাইডারম্যান হওয়ার ইচ্ছে ছিল। কিন্তু বাবা-মায়ের চাপে শেষ পর্যন্ত হয়েছেন একজন ওয়েডিং ফটোগ্রাফার।
আরেকজন লিখেছেন- ওই দম্পতি হয়তো সেলফি স্টিক ঘৃণা করেন। আসলে তিনি একজন স্পাইডারম্যান। এই ছবির প্রতিক্রিয়ায় আরও অনেকেই ব্যতিক্রমী কিছু বিয়ের ছবি পোস্ট করেছেন।
এই অ্যাক্রোব্যাট ফটোগ্রাফার ভিষ্ণু দক্ষিণ ভারতের বাসিন্দা। বিবিসিকে তিনি বলেন, ওই দম্পতি ১৫ এপ্রিল বিয়ে করেছেন কেরালার একটি গ্রামে।
ছবিটি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়লে আমাকে লোকজন টিপ্পনি কাটবে ভেবে ভয়ে ছিলাম।
তিনি বলেন, আমি খুব নার্ভাস হয়ে গিয়েছিলাম। কিন্তু ভাগ্য ভালো যে সবাই এটি খুব পছন্দ করেছে। তারা আমার এই চেষ্টাকে উল্লেখ করছে ডেডিকেশন হিসেবে। আমি খুশি।
তখন জানা গেল ছবি তোলার জন্য তিনি যে এই প্রথম গাছে চড়েছেন তা নয়। এর আগেও তিনি বহুবার গাছে উঠেছেন সেরা শটটি তোলার জন্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *