গেমের জন্য স্যামসাংয়ের গোপন স্মার্টফোন

স্মার্টফোনের ভবিষ্যৎ কোন দিকে? বিশেষজ্ঞরা বলছেন, আগামী বছর থেকেই স্মার্টফোনে গেমের বিষয়টি বেশি গুরুত্ব পাবে। স্মার্টফোন নির্মাতারা এ বিষয়ে গুরুত্ব দিতে শুরু করেছেন। গেম খেলার সুবিধাযুক্ত স্মার্টফোনে গুরুত্ব দিতে শুরু করেছে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিষ্ঠান স্যামসাং। এর কারণ? অ্যান্ড্রয়েড প্ল্যাটফর্মে নতুন গেমারদের যে আগ্রহ তৈরি হয়েছে, তা কাজে লাগানো। নতুন নকশার ভাঁজ করা স্মার্টফোন ঘিরে শুরু হয়ে গেছে আলোচনা।

সম্প্রতি স্যামসাংয়ের নতুন নকশার স্মার্টফোনের পেটেন্ট প্রকাশিত হয়েছে। ওই পেটেন্টের শিরোনাম হচ্ছে ‘মোবাইল ডিভাইস উইথ টাচস্ক্রিন অ্যান্ড মেথড অব কন্ট্রোলিং দ্য সেম’। ওই পেটেন্টের বর্ণনায় বলা হয়েছে, নতুন ভাঁজ করা স্মার্টফোন বইয়ের মতো খোলা ও বন্ধ করা যাবে। এ ছাড়া স্মার্টফোনের দুটি অংশ ৩৬০ ডিগ্রি বাঁকা করার সুবিধা থাকবে। দুটি পৃথক স্ক্রিনের তৈরি স্মার্টফোনটি সফটওয়্যারের মাধ্যমে পরস্পরের সঙ্গে যুক্ত থাকবে। এই দুটি স্ক্রিন পৃথকভাবে ব্যবহার করা যাবে, আবার চাইলে ট্যাবলেট বা ডেস্কটপের মতো একটি স্ক্রিন হিসেবেও ব্যবহার করা যাবে।

নতুন এই স্মার্টফোনটিতে মাল্টিমিডিয়া ব্যবহার ও গেম খেলার ক্ষেত্রে বিশেষ সুবিধা পাওয়া যাবে। একটি স্ক্রিনকে ডিসপ্লে হিসেবে ব্যবহার ও আরেকটিকে টাচ কন্ট্রোলার হিসেবে ব্যবহার করা যাবে।

বর্তমানে স্যামসাংয়ের শুধু গেমের জন্য নির্দিষ্ট কোনো ডিভাইস নেই। মোবাইল গেমিং ডিভাইস হিসেবে গ্যালাক্সি এস সিরিজের স্মার্টফোনের কথা প্রচার করে প্রতিষ্ঠানটি।

অবশ্য পেটেন্ট করলেই যে সে স্মার্টফোন বাস্তবে আলোর মুখ দেখে তা কিন্তু নয়। তবে মোবাইল গেমিংয়ের ওপর জোর দেওয়া শুরু করেছে স্মার্টফোন নির্মাতা। গেমিং যন্ত্রাংশ নির্মাতা রেজার সম্প্রতি গেমের জন্য বিশেষ স্মার্টফোন বাজারে ছেড়েছে। স্যামসাংও এ খাতটি পরীক্ষা করে দেখতে চাইছে। তথ্যসূত্র : ফোর্বস অনলাইন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *