বুধবার, ডিসেম্বর ৫, ২০১৮, ১১:১৩ অপরাহ্ণ

নিউজ মিডিয়া ২৪: ঢাকা: হেফাজত ইসলামী বাংলাদেশের আমির আল্লামা আহমদ শফি বলেছেন, আম্বিয়া (আ.) এর উত্তরাধিকারী, দ্বীনি (ধর্মীয়) শিক্ষা চর্চা ও প্রচারকারী আলেম সমাজ এবং ছাত্রদের রক্ত বৃথা যাবে না। মাওলানা সা’দের ফেতনা থেকে মানুষকে বাঁচাতে আলেম-উলামা, মুফতি-মুহাদ্দিস ও মাদরাসার ছাত্ররা ধৈর্য, ত্যাগ এবং রক্তের যে নজরানা পেশ করেছে তা বেনজির। ‘ইনশাআল্লাহ’এর মাধ্যমে এই ময়দানে মুসলিম উম্মাহর হেদায়াতের পথ সুগম হবে।
মঙ্গলবার দিনগত রাত ৮টার পর আল্লামা আহমদ শফির কার্যালয় থেকে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বার্তায় এসব কথা বলা হয়।
ওই বার্তায় আরও উল্লেখ করা হয়েছে, দাওয়াতে তাবলিগের বিশ্ব ইজতেমার প্রস্তুতি জোড়কে কেন্দ্র করে টঙ্গির মাঠে মাওলানা সা’দের অনুসারীদের বর্বরোচিত হামলায় আহত তাবলীগী সাথি, আলেম সমাজ ও মাদরাসা ছাত্রদের সেবায় এগিয়ে আসা প্রয়োজন। ঢাকা ও এর আশপাশের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আহতদের পাশে দাঁড়াতে তিনি সামর্থবানদের প্রতি আহবান জানান তিনি।
উল্লেখ্য, গত শনিবার (১ডিসেম্বর) সকাল থেকে মাওলানা সা’দের অনুসারীরা টঙ্গীর মাঠ দখলকে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষে একজন নিহত ও পাঁচ শতাধিক লোক গুরুতর আহত হন।
পরে এ ঘটনার জন্য তাবলিগের শীর্ষ নেতৃবৃন্দ পরস্পর পরস্পরকে দায়ী করে যাচ্ছেন।
মাওলানা যুবায়েরের অনুরাসারীদের দাবি, সম্পূর্ণ পূর্বপরিকল্পিত হামলা চালানো হয়েছে শান্তিময় বিশ্ব দাওয়াতি কাজ স্তব্ধ করে দেয়ার জন্য।