সোমবার, ডিসেম্বর ১৮, ২০১৭, ৫:৫৮ অপরাহ্ণ

কানাডার টরন্টোতে একটি বাড়ির বেসমেন্ট ধনকুবের ব্যারি শেরম্যান ও তাঁর স্ত্রী হানি শেরম্যানের লাশ পাওয়া গেছে। ঘটনাটিকে রহস্যজনক বলে মনে করছে পুলিশ।

বিবিসির খবরে জানা যায়, অ্যাপোটেক্স নামে একটি ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানির প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান ব্যারি শেরম্যান। অ্যাপোটেক্স বিশ্বের অন্যতম ওষুধ বিক্রয়কারী প্রতিষ্ঠান। জনহিতৈষী ব্যক্তি হিসেবেও যথেষ্ট সুনাম ছিল ব্যারির।

পুলিশ গত শুক্রবার এক বিবৃতিতে জানায়, সম্পত্তি দখল করার জন্য এই হত্যাকাণ্ড ঘটেছে বলে কোনো প্রমাণ তারা খুঁজে পাননি। স্থানীয় গণমাধ্যমের খবরে জানা যায়, সন্দেহভাজন হত্যাকারীর খোঁজ চলছে।

কানাডীয় সম্প্রচারমাধ্যম সিবিসিকে গোয়েন্দা ব্রান্ডন প্রাইস বলেন, তদন্তকারীরা হত্যার কারণ খুঁজছে।

তবে এই হত্যার ব্যাপারে পুলিশ খুব অল্প তথ্যই দিতে পেরেছে।

কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো টুইটে ব্যারি ও হানি শেরম্যানের হঠাৎ মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন। তাঁদের পরিবার ও বন্ধুর প্রতি সমবেদনা জানান তিনি।

অন্টারিও অঙ্গরাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী এরিক হসকিন্স এক টুইটে বলেন, এখন আমি প্রতিক্রিয়া জানানোর কোনো ভাষা খুঁজে পাচ্ছি না। আমার বন্ধু ব্যারি ও হানির লাশ পাওয়া গেছে। তাঁরা চমৎকার মানুষ ছিলেন। ব্যারি খুবই জনহিতৈষী ছিলেন। স্বাস্থ্যসেবা খাতে তাঁরা মহান ছিলেন।

সিনেটর লিন্ডা ফ্রাম বলেন, উদারতা, কঠোর পরিশ্রমের কারণে তিনি ওই দম্পতিকে পুরস্কৃত করেন। হানি ও ব্যারি শেরম্যানের মৃত্যুতে তিনি শোকাহত বলে জানান। দুজনের লাশ কম্বলে মুড়ে বাড়ি থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

পুলিশের মুখপাত্র কনস্টেবল ডেভিড হপকিন্স বলেন, তাঁদের মৃত্যুতে পরিস্থিতি রহস্যময় হয়ে উঠেছে।

টরন্টোর পত্রিকা গ্লোব অ্যান্ড মেইল পরিবারের এক সদস্যের বরাত দিয়ে বলেন, তাদের বিলাসবহুল বাড়িটি বিক্রি করার প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে।

১৯৭৪ সালে শেরম্যান অ্যাপোটেক্স প্রতিষ্ঠা করেন। প্রতিষ্ঠানটি বলছে, এটি এখন বিশ্বের সপ্তম বৃহত্তম ওষুধ নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান। ফোর্বস ম্যাগাজিন বলছে, শেরম্যানের ব্যক্তিগত সম্পদের পরিমাণ ৩২০ কোটি ডলার।