বুধবার, আগস্ট ১, ২০১৮, ৬:৩৫ অপরাহ্ণ

নিউজ মিডিয়া ২৪: বাসচাপায় দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুর ঘটনায় নিরাপদ সড়কের দাবিতে টানা চতুর্থ দিনের মত রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করেছে স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীরা।

ক্লাস বন্ধ রেখে ব্যাগ কাঁধে ইউনিফর্ম পরে শিক্ষার্থীদের এই আন্দোলনে সারাদিন কার্যত অচল থাকে রাজধানীর রাজপথ।

ক্রমশ জটিল আকার নিতে থাকা এই আন্দোলনের মধ্যে বুধবারও বিভিন্ন স্থানে গাড়ি ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে চট্টগ্রামসহ বিভিন্ন শহরে।

ঢাকায় আন্দোলনরত ছাত্ররা পুলিশের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়ে গাড়ি থামিয়ে চালকদের লাইসেন্স দেখতে চেয়েছে পুলিশের সামনেই। লাইসেন্স দেখাতে না পারলে গাড়ির চাবি আটকে রাখে তারা।

ধানমণ্ডিতে শিক্ষার্থীদের লাইসেন্স দেখাতে না পারায় পুলিশের একটি গাড়িকে দীর্ঘসময় আটকে থাকতে হয়। একই ধরনের সমস্যায় পড়ে বিভিন্ন সরকারি সংস্থার বেশ কয়েকটি গাড়ি।

বাংলামোটরে উল্টো পথ দিয়ে যাওয়ার সময় বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদের গাড়ি শিক্ষার্থীদের তোপের মুখে পড়ে। মন্ত্রীর সামনেই শিক্ষার্থীরা স্লোগান দেয়-‘আইন সবার জন্য সমান’।

শনির আখড়ায় শিক্ষার্থীদের এড়াতে উল্টোপথ দিয়ে দ্রুত গতিতে যাওয়া একটি পিকআপ এক আন্দোলনকারীকে ধাক্কা দিয়ে যায়। পায়ে আঘাত নিয়ে ওই কলেজছাত্র এখন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

এদিকে শিক্ষার্থীদের পাল্টায় নারায়ণগঞ্জে পরিবহন শ্রমিকরাও সকাল থেকে ছয় ঘণ্টা ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক আটকে রেখে বিক্ষোভ করে। সেখানে রাস্তায় স্কুলছাত্রদের মারধর করার ঘটনাও ঘটে।