নির্বাচনী প্রকল্পের আওতায় ভৌতিক মামলা, গণগ্রেফতার : খসরু

নিউজ মিডিয়া ২৪: ঢাকা : বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ বলেছেন, আজকে যারা জাতির প্রত্যাশা পূরণ করবে না, যেসব রাজনীতিবিদ জাতির বিপক্ষে দাঁড়াবে, তারা আজ কলঙ্কিত হবে। জাতি আজ নিবিড় পর্যবেক্ষণ করছে কারা তাদের বিপক্ষে দাঁড়াচ্ছে, কারা পক্ষে দাঁড়াচ্ছে। জাতি আজ প্রস্তুত হয়ে গেছে। আজকে আপনাদের এই প্রবাদ-শক্তিকে সঠিক পথে চালিত করতে হবে। এই বৃহৎ শক্তিকে কাজে লাগিয়ে দেশকে মুক্ত করতে হবে।
আজ শুক্রবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী সংগ্রামী দল আয়োজিত এক আলোচনা সভায় খসরু এই মন্তব্য করেন।
‘নির্বাচন নামক প্রকল্পের’ আওতায় খালেদা জিয়া জেলে আছেন দাবি করে আমীর খসরু বলেন, ‘নির্বাচন নামক এই প্রকল্পের আওতায় বর্তমানে ভৌতিক মামলা দিয়ে লাখ লাখ নেতাকর্মীসহ সাধারণ মানুষক আসামি করা হচ্ছে, গ্রেপ্তার করা হচ্ছে।’
এই নির্বাচনী প্রকল্পের আওতায় ইভিএম নামক একটি মেশিন এসেছে উল্লেখ করে বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘এই প্রকল্পের আওতায় বিভিন্ন সংস্থাকে দিয়ে বিরোধীদলীয় নেতৃবৃন্দকে হয়রানি করছে। এই প্রকল্পের আওতায় সংবিধানকে ব্যবহার করা হচ্ছে। যেই সংবিধান দেশের নাগরিকদের সুরক্ষার জন্য, সেটা ব্যবহার করা হচ্ছে দেশের মানুষের বিরুদ্ধে।’
‘ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন করা হয়েছে যেন স্বাধীনভাবে গণমাধ্যম কাজ করতে না পারে। দেশের বিভিন্ন ধরনের আইন করা হচ্ছে, যাতে করে গণমাধ্যম স্বাধীনভাবে কথা বলতে না পারে। একটা আইন করে দেশের জনগণসহ গণমাধ্যমের মুখ বন্ধ করতে চায় সরকার।’
বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্য বলেন, ‘এই প্রেক্ষাপটে জাতি আজ সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছে। জনগণ আজ ঐক্যবদ্ধ হয়ে গেছে তাদের মালিকানা ফিরে পেতে। এতে কোনো সন্দেহ নাই, যার প্রতিফলন হিসেবে আপনারা দেখতে পাচ্ছেন জাতীয় ঐক্য হতে যাচ্ছে।’ সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান সাবেক মন্ত্রী চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ, মো. জাহাঙ্গীর হোসেন প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *