শুক্রবার, জুলাই ৬, ২০১৮, ১২:১০ পূর্বাহ্ণ

নিউজ মিডিয়া ২৪: ঢাকা : আগামী সংসদ নির্বাচন অংশগ্রহণমূলক ও প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হবে এবং বিএনপি আসবে—এটি ধরে নিয়েই নির্বাচনের প্রস্তুতি নিতে এমপিদের নির্দেশ দিয়েছেন আওয়ামী লীগের সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদ ভবনে আওয়ামী লীগের সংসদীয় দলের সভায় সংসদ নেতা শেখ হাসিনা দলের সংসদ সদস্যদের এ নির্দেশ দেন। বৈঠকে উপস্থিত থাকা একাধিক সংসদ সদস্য নাম প্রকাশ না করার শর্তে গণমাধ্যমকে এ কথা জানিয়েছেন।

সূত্র জানায়, মূলত সংবিধানের সপ্তদশ সংশোধনী বিল পাস করাকে সামনে রেখে ক্ষমতাসীন দলের এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। সংসদে নারীদের জন্য সংরক্ষিত আসনের মেয়াদ আরও ২৫ বছর বাড়ানোর জন্য সংবিধানের সপ্তদশ সংশোধনী আনা হচ্ছে। আগামী রোববার সংসদের বৈঠকে সংবিধান সংশোধন বিল পাসের জন্য তোলা হবে। ওই দিন সরকারি দলের সদস্যদের উপস্থিতি নিশ্চিত করতে বলা হয়েছে। বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী নিজে নারী আসনের মেয়াদ বাড়ানোর যৌক্তিকতা ব্যাখ্যা করেন।

সূত্র জানায়, বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সংসদ সদস্যদের বলেছেন, আগামী নির্বাচন অংশগ্রহণমূলক ও প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হবে। বিএনপি নির্বাচনে আসবে—এটি ধরে নিয়েই সবাইকে এখন থেকে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিতে হবে। নেতা-কর্মী ও জনগণের সঙ্গে সম্পৃক্ততা বাড়াতে হবে। অভ্যন্তরীণ কোন্দল মিটমাট করতে হবে। এলাকায় জনপ্রিয় হিসেবে যাঁদের নাম আসবে, তাঁদেরই কেবল নির্বাচনে মনোনয়ন দেওয়া হবে। দলের মনোনীত প্রার্থীদের পক্ষে সবাইকে কাজ করতে হবে। একজন এমপি বলেন, বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী দুজন মন্ত্রীর নাম উল্লেখ করে বলেছেন, দলের প্রয়োজনে তাঁরা দুজন গত নির্বাচনে প্রার্থিতা প্রত্যাহার করেছেন। এটি উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত। আগামী নির্বাচনে এ ধরনের পরিস্থিতি তৈরি হলে ছাড় দেওয়ার মানসিকতা রাখতে হবে।

বৈঠক সূত্র জানায়, প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, নারী আসনের সংসদ সদস্যদের অনেকে নিজের এলাকাকে নিজের আসন বানানোর চেষ্টা করছেন। এতে সমস্যা তৈরি হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী সংরক্ষিত নারী সংসদ সদস্যদের উদ্দেশে বলেন, এখন যাঁরা সংরক্ষিত নারী সংসদ সদস্য আছেন, আগামীবার তাঁদের সবাইকে রাখা যাবে না। অনেকে বাদ যাবেন, আবার নতুন অনেকে সুযোগ পাবেন। সংসদ নেতা শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে সরকারি দলের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত বৈঠকে সরকারি দলের সংসদ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।