শনিবার, সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৮, ২:০৩ পূর্বাহ্ণ

নিউজ মিডিয়া ২৪: ঢাকা :ডেস্ক : কাশ্মিরের সোপিয়ানে তিন পুলিশের অপহরণ ও খুনের ঘটনার পর পাকিস্তানের সঙ্গে পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠক বাতিল করেছে ভারত। জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের বৈঠকের ফাঁকে আগামী সপ্তাহে পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশির সঙ্গে আলোচনায় বসার কথা ছিল পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের। সোপিয়ানের ঘটনার পর শুক্রবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তরফে বলা হয়েছে, ‘আলোচনা আর সন্ত্রাস একই সঙ্গে চলতে পারে না।’ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রবীশ কুমার বলেছেন, ‘ক্ষমতায় আসার কয়েক মাসের মধ্যেই ইমরান খানের মুখোশটা সরে গিয়ে মুখটা বেরিয়ে এল।’
পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর ইমরান খান ওই বৈঠকের প্রস্তাব দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে। ভারত তাতে রাজি হয়। তবে এও জানায়, ওই বৈঠকের অর্থ এই নয় যে, দুই প্রতিবেশী দেশের মধ্যে আবার আলাপ-আলোচনা শুরু হলো।
আনন্দবাজার জানায়, কাশ্মিরের সোপিয়ানে বৃহস্পতিবার রাতে চার পুলিশকর্মীকে অপহরণ করে জঙ্গিরা। তাদের মধ্যে তিনজনের দেহ শুক্রবার সকালে উদ্ধার করা হয়। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র দপ্তর সূত্রে জানানো হয়েছে, অপহৃতদের মধ্যে একজন গ্রামবাসীদের সাহায্যে পালিয়ে আসতে পেরেছেন। মঙ্গলবারই এক ভিডিও বার্তায় পুলিশ ও নিরাপত্তা কর্মীদের চাকরি থেকে ইস্তফা দেয়ার দাবি জানায় সন্ত্রাসবাদী সংগঠন হিজবুল মুজাহিদিন। পদত্যাগ না করলে হত্যার হুমকিও দেয়া হয়। এরপরই এই ঘটনা। তাই প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান, অপহরণের নেপথ্যে রয়েছে হিজবুল মুজাহিদিন।
স্বরাষ্ট্র দপ্তরের এক কর্মকর্তা বলেন, উপত্যকায় জঙ্গিরা কোণঠাসা। পাথর বৃষ্টি বা অন্য কোনও বিশৃঙ্খলায় কাশ্মিরবাসী আর তাদের সাহায্য করছেন না। তাই এখন অন্য পথে চাপ সৃষ্টির চেষ্টা চলছে।