সোমবার, ডিসেম্বর ১৮, ২০১৭, ৫:৪৭ অপরাহ্ণ

পর্তুগালের রাজধানী লিসবনে বাংলাদেশ দূতাবাসের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১৯৭১ সালের ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণের ইউনেসকো স্বীকৃতি উপলক্ষে এক আনন্দ শোভাযাত্রা ও আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত ১৬ ডিসেম্বর শনিবার আনন্দ শোভাযাত্রা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানের শুরুতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়।

দূতাবাসে আয়োজিত সভায় পর্তুগালে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মো. রুহুল আলম সিদ্দিকী স্বাগত বক্তব্যে বঙ্গবন্ধুর ঐন্দ্রজালিক নেতৃত্বের গুণাবলি ও স্বদেশের জন্য তাঁর সর্বোচ্চ আত্মত্যাগের প্রশংসা করেন। একটি ঐতিহাসিক বক্তৃতা কীভাবে একটি গোটা জাতির ভাগ্য পরিবর্তনে সক্রিয় ভূমিকা রেখেছিল এবং সাধারণ জনগণকে স্বাধীনতা সংগ্রামে যোগদানে অনুপ্রাণিত ও ঐক্যবদ্ধ করেছিল, সে বিষয়গুলো নিয়ে আলোকপাত করেন।

অনুষ্ঠানে উল্লেখযোগ্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের পর্তুগাল শাখার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ফরহাদ মিয়া, সাধারণ সম্পাদক শওকত ওসমান, উপদেষ্টা আবুল বাশার, সহসভাপতি পনির আজমল, বঙ্গবন্ধু পরিষদের পর্তুগাল শাখার সভাপতি দেলওয়ার হোসেন, ইমরান হোসেন, রেজাউল বাসিদ, সোহরাব হোসেন, দেলোয়ার হোসেইন, মহিবুর রহমান, রনি হোসেইন, শিফলু আহেমদ, আনসার আলী, জিয়াউল হক, মাইন ঊদ্দিন, মামুনুর রশিদ, মোহাম্মদ তারেক হোসেন, বাপ্পী তালুকদার, পারভেজ আহমদ, মিজানুর রহমান, জাহাঙ্গীর আলম, ফয়জুল ইসলাম ও আনোয়ার হোসেন প্রমুখ।
সব শেষে আগত অতিথিদের বাংলাদেশি হরেক রকমের খাবারে আপ্যায়িত করা হয়।

সংবাদপ্রেরক: মোহাম্মদ নুরুল্লাহ, লিসবন, পর্তুগাল।