বার্সার কাছে ‘গার্ড অব অনার’ চান রোনালদো!

এখন সময়টা হয়তো ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোরই। কিছুদিন আগেই ক্যারিয়ারের পঞ্চম ব্যালন ডি’অর জিতেছেন। সে সময় দম্ভভরে রোনালদো জানিয়েছিলেন, তিনিই সর্বকালের সেরা ফুটবলার। আর গত রাতে নিজের গোলে গ্রেমিওকে হারিয়ে ক্লাব বিশ্বকাপের শিরোপা জেতার পর ফাটালেন আরও একটি বোমা। মৌসুমের প্রথম এল ক্লাসিকোতে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী বার্সেলোনার কাছ থেকে গার্ড অব অনার পেতে চান রিয়াল মাদ্রিদ ফরোয়ার্ড।

আসছে ২৩ তারিখেই লা লিগার প্রথম এল ক্লাসিকো। ঘরের মাঠ সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে রোনালদোরা আতিথ্য দেবেন মেসি-সুয়ারেজদের। এর আগে চেনা শত্রুর কাছ থেকে ‘গার্ড অব অনার’ পেতে চান রোনালদো। ফাইনাল-পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের রোনালদো বলেছেন, ‘এটা ভালোই হবে এবং আমি চাই বার্সেলোনা আমাদের “গার্ড অব অনার” দিক। আশা করছি, আমরা ম্যাচটা জিতব এবং রিয়ালের জন্য লিগ জেতার সুযোগ থাকবে। আমাদের প্রতিটা মুহূর্ত উপভোগ করতে হবে, কারণ আমরা জানি না ভবিষ্যতে কী ঘটতে যাচ্ছে।’

ক্লাব বিশ্বকাপ জিতে এক মৌসুমে পাঁচ-পাঁচটি শিরোপা জিতল জিনেদিন জিদানের রিয়াল মাদ্রিদ। শিরোপার বিচারে পৃথিবীর সফলতম ক্লাবটি এর আগে কখনোই মৌসুমে পাঁচটি শিরোপা জেতেনি। স্বাভাবিকভাবেই এমন একটি অর্জনের অংশ হতে পেরে দারুণ উচ্ছ্বসিত রোনালদো, ‘গোলটি করতে পেরে আমি আনন্দিত, খুবই খুশি। আমি দারুণ একটা মৌসুম কাটাচ্ছি। রিয়াল মাদ্রিদ কখনোই এক বছরে পাঁচটি শিরোপা জেতেনি, আমরা এটা করতে চেয়েছিলাম। এটা দারুণ একটা রেকর্ড।’

ইউরোপীয় ফুটবলের রীতি অনুযায়ী কোনো ক্লাব লিগ শিরোপা আগেই নিশ্চিত করে ফেললে সেই দল মৌসুমের বাকি ম্যাচগুলোয় প্রতিপক্ষের মাঠে ‘গার্ড অব অনার’ পায়। তবে এটি মূলত একটি প্রথা, কোনো বাধ্যগত নিয়ম নয়। রোনালদোর এমন মন্তব্যে বার্সেলোনা-সমর্থকদের জ্বলুনিটা বাড়ার কথা। গত মৌসুমে জাপানে অনুষ্ঠিত ক্লাব বিশ্বকাপ জেতার পর বার্সেলোনার মাঠে ‘গার্ড অব অনার’ পায়নি রিয়াল। উয়েফা সুপার কাপ জেতার পর দুই দলের দেখা হয়েছিল সুপারকোপা ডি এস্পানাতে। সেখানেও রামোসদের কপালে এই সম্মান জোটেনি। মজার ব্যাপার হলো ২০১৫ সালের জানুয়ারিতে ভ্যালেন্সিয়ার কাছে ঠিকই গার্ড অব অনার পেয়েছিল মাদ্রিদ। ঠিক তার পরের মৌসুমেই বার্সেলোনাকে এই সম্মান দেখিয়েছিল রিয়াল বেটিস। এখন এই মন্তব্যে নিজের জন্যই গর্ত খুঁড়লেন না তো রোনালদো? এই মৌসুমে লা লিগার শীর্ষস্থানে রয়েছে কাতালান ক্লাবটি, রোনালদোদের সঙ্গে পয়েন্ট ব্যবধান ৮। আর লিগে রিয়ালের ফর্ম হিসাবে নিলে শিরোপার জন্য ফেবারিট মানতে হয় বার্সেলোনাকেই। সূত্র: মার্কা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *