নিউজফিডে বেশি করে ভিডিও দেখানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে ফেসবুক। এমনকি বিজ্ঞাপনের ক্ষেত্রেও ভিডিওকে প্রাধান্য দেবে। গত বৃহস্পতিবার ফেসবুক কর্তৃপক্ষ নিউজফিডে ভিডিও দেখানোর এ সিদ্ধান্ত জানায়। বিভিন্ন অনুষ্ঠান পর্ব ধরে দেখানোর মাধ্যমে গুগলের ভিডিও প্ল্যাটফর্ম ইউটিউবের সঙ্গে সরাসরি প্রতিযোগিতায় নেমে পড়ল ফেসবুক।

ফেসবুকের নিউজফিডে সাধারণ বন্ধু বা বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের খবর পোস্ট আকারের দেখানো হয়। ওয়েবসাইট বা মোবাইল অ্যাপ থেকে ২১০ কোটি ব্যবহারকারী ফেসবুক চালু করলে ওই নিউজ ফিড দেখতে পান। এ বিষয়টিই মূল্যবান অনলাইন সম্পদে পরিণত হয়েছে। জটিল এক র‍্যাঙ্কিং সিস্টেমের মাধ্যমে ব্যবহারকারী কোনো পোস্ট আগে দেখবে তা নির্ধারিত হয়। গত বছরে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ বলেছিল, নিউজফিডে বন্ধু ও পরিবারের পোস্টকে গুরুত্ব দেওয়া হবে।

ফেসবুক বর্তমানে ভিডিওতে বিনিয়োগ করছে বেশি। গত আগস্ট মাসে ভিডিও সেবা ওয়াচ তৈরি করেছিল প্রতিষ্ঠানটি। ভকস ও ডিসকভারি কমিউনিকেশনসের বিভিন্ন অনুষ্ঠান ওই ভিডিওতে দেখানো হয়। ইউটিউবের মতো ভিডিও নির্মাতাদের তৈরি ভিডিও এতে আপলোড করার সুবিধা দিতে ওয়াচ চালু হয়।

এখন নিউজফিডে হালনাগাদ আনার ফলে ফেসবুক ব্যবহারকারীদের লাইক দেওয়া পেজ ও সার্চ হিস্ট্রি অনুযায়ী অনুমান করে ভিডিও দেখাবে ফেসবুক। অনুষ্ঠানের আগের কোনো পর্ব দেখলে পরের পর্বগুলো চলে আসবে।

প্রযুক্তি গবেষণা প্রতিষ্ঠান পিভোটাল রিসার্চের গ্রুপের বিশ্লেষক ব্রায়ান উইজার বলেন, ফেসবুকের আয় দ্রুত বাড়ছে। বিশ্বজুড়ে ব্যবহারকারী বাড়ছে। তবে ফেসবুকে বেশিক্ষণ ব্যবহারকারীকে আটকে রাখতে পারছে না প্রতিষ্ঠানটি। এ ক্ষেত্রে ভিডিও তাদের সুবিধা দেবে। ইউটিউবও দ্রুত বাড়ছে। এ ছাড়া ব্যবহারকারীকে ভিডিও দেখার সময় বিরক্ত করতে চায় না প্রতিষ্ঠানটি। ভিডিও যদি তিন মিনিটের কম হয়, তবে মাঝপথে কোনো বিজ্ঞাপন দেখাবে না। এতে অনেক প্রতিষ্ঠান বেশি দৈর্ঘ্যের ভিডিও তৈরিতে উৎসাহী হবে। তথ্যসূত্র: রয়টার্স।