ভারতের ঘামও ঝরাতে পারল না শ্রীলঙ্কা

২১৬ রানের লক্ষ্য পেরোতে ভারতের কষ্ট হওয়ার কথা নয়। তাই বলে এতটা একতরফা জয় হয়তো স্বাগতিকেরাও আশা করেনি। মাত্র ২ উইকেট হারিয়েই সিরিজ জিতে নিল ভারত। সিরিজের তৃতীয় ওয়ানডেতে শিখর ধাওয়ানের দারুণ এক সেঞ্চুরিতে ১০৭ বল হাতে রেখেই ম্যাচ জিতে নিল ভারত।

আগের ম্যাচের ডাবল সেঞ্চুরিয়ান রোহিত শর্মা আজ ফিরে গেছেন ৭ রানে। ১৪ রানে প্রথম উইকেট হারানো ভারত শুরুতে কিছুক্ষণ অস্বস্তিতে কাটিয়েছে। কিন্তু আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ে শ্রেয়াস আয়ার ও শিখর ধাওয়ান সব দুশ্চিন্তা ঝেঁটিয়ে বিদায় করেছেন। ৬৩ বলে ৬৫ রান করে আয়ার যখন ফিরছেন, ভারতের রান তখন প্রায় দেড় শ ছুঁইছুঁই (১৪৯)। আয়ার ফিরে গেলেও রানের চাকার গতি শ্লথ হয়নি ভারতের। ৮৫ বলে ১০০ রান করে ৩২.১ ওভারেই ম্যাচ শেষ করে দিয়েছেন ধাওয়ান।

১৬ ওভার ও ৫৫ রানের একটি অধ্যায়ই ম্যাচের রূপ বদলে দিল। দুর্দান্ত এক বছর কাটানো উপুল থারাঙ্গা সেঞ্চুরি দিয়ে বছর শেষ করার অপেক্ষায়। মাত্র তৃতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে ২০১৭ সালে ওয়ানডেতে এক হাজার রান তোলার উদ্‌যাপন সেঞ্চুরিতেই মানাত। চায়নাম্যান কুলদীপ যাদবের একটি বাইরের বল ড্রাইভ করতে গেলেন এই ওপেনার। সেকেন্ডের ভগ্নাংশের জন্য গোড়ালিটা বের হয়ে এল ক্রিজ থেকে। ওটুকুতেই সর্বনাশ হয়ে গেল থারাঙ্গার। ধোনির গ্লাভস ভেঙে দিল স্টাম্প। ৮২ বলে ৯৫ রান করে ফিরে গেলেন থারাঙ্গা। শ্রীলঙ্কার রান তখন ১৬০। ইনিংসের বয়স ২৭.১ ওভার। হাতে আ-ট উইকেট।

শ্রীলঙ্কার ধসের শুরু থারাঙ্গার আউটে। এর পর একে একে ফিরলেন ডিকভেলা, ম্যাথুস, পেরেরারা। ২৫ ওভার শেষে সহজে ৩০০ ছোঁয়ার অপেক্ষায় থাকা শ্রীলঙ্কা সব গুবলেট পাকিয়ে শেষ ৮ উইকেট হারাল ৫৫ রানে। টেস্টেও ৫০-এর ওপর স্ট্রাইকরেট রাখা আসেলা গুনারত্নে অনেকক্ষণ ঠুকঠুক করলেন শেষ দিকে। কিন্তু ৫১ বলে ১৭ করেও ৪৫তম ওভারে দলের অলআউট হওয়া আটকাতে পারলেন না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *