যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে অর্থনৈতিক যুদ্ধ ঘোষণার হুমকি রাশিয়ার

নিউজ মিডিয়া ২৪: ঢাকা: রাশিয়ার বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্র যদি আর কোনো অথনৈতিক অবরোধ আরোপ করে তাহলে ওয়াশিংটনের বিরুদ্ধে অর্থনৈতিক যুদ্ধ ঘোষণা করার হুমকি দিয়েছে মস্কো। আর এই যুদ্ধের মধ্যে সকল অথনৈতিক বিষয়, রাজনৈতিক এবং অন্যান্য সকল বিষয় অন্তর্ভুক্ত হবে। রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী দিমিত্রি মেদভেদেভ শুক্রবার দেশটির দূর-পূর্বাঞ্চলের কামচাটকা উপদ্বীপ পরিদর্শনকালে এসব কথা বলেন।

দেশটির তাস নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সফরকালে মেদভেদেভকে জিজ্ঞেস করা হয়- রাশিয়ার ওপর ভবিষ্যতে কী ধরনের অবরোধ আরোপ করা হতে পারে এবং দেশের অর্থনীতির ওপর তার কী প্রভাব পড়তে পারে?

এর জবাবে মেদভেদেভ বলেন, ‘ভবিষ্যত অবরোধের ব্যাপারে আমি কিছু বলতে চাই না। তবে একটি কথা আমি বলতে পারি, তা হলো- ব্যাংকিং কার্যক্রম কিংবা কোনো মুদ্রা ব্যবহারের ওপর কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হলে যে ব্যবস্থা নেওয়া হবে, তাকে অর্থনৈতিক যুদ্ধ বলে অভিহিত করতে পারেন। আর ওই যুদ্ধের জবাব দিতে হবে অর্থনৈতিক এমনকি প্রয়োজন হলে রাজনৈতিক এবং অন্যান্য যা প্রয়োজন তার সব কিছু দিয়ে। আমাদের আমেরিকান বন্ধুদের সেটা অনুধাবন করা উচিত।’

বর্তমানে যে অবরোধ রয়েছে এবং সম্প্রতি ঘোষণা (আগস্ট শেষে কার্যকর) করা হয়েছে সে বিষয়ে বলতে গিয়ে রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী বলেন, তা রাজনৈতিক কারণে হলেও মূল উদ্দেশ্য হলো আমাদের অথনৈতিক শক্তিকে খর্ব করা।

মেদভেদেভ বলেন, ‘বিগত এক শ বছরের দিকে তাকালে দেখা যাবে, আমাদের অর্থনীতি নানা অবরোধের চাপে রয়েছে। এটা কেন করা হচ্ছে? আন্তর্জাতিক অঙ্গনে শক্তিশালী প্রতিদ্বন্দ্বীর তালিকা থেকে রাশিয়ার নাম মুছে ফেলতে।’

প্রসঙ্গত, ব্রিটেনে রাশিয়ার সাবেক সামরিক গোয়েন্দা কর্মকর্তা সার্গেই স্ক্রিপাল ও তার মেয়ে ইউলিয়ার ওপর নার্ভ এজেন্ট প্রয়োগের ব্যাপারে মস্কোকে দায়ী করে আসছে লন্ডন। ওই ঘটনায় গত বুধবার মস্কোর ওপর অবরোধ আরোপের ঘোষণা দেয় ওয়াশিংটন। আগামী ৯০ দিনের মধ্যে এ ব্যাপারে রাশিয়া কোনো প্রতিক্রিয়া না দেখালে দ্বিতীয় পর্যায়ে আরো কঠোর অবরোধ আরোপের হুমকি দেয় যুক্তরাষ্ট্র।

একই ইস্যুতে এর আগে যুক্তরাষ্ট্র দেশটি থেকে এক শ রুশ কূটনীতিককে বহিষ্কার করে। জবাবে রাশিয়াও সমসংখ্যক মার্কিন কূটনৈতিক বহিষ্কার করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *