বুধবার, জুন ১৯, ২০১৯, ১২:০২ পূর্বাহ্ণ

নিউজ মিডিয়া ২৪: ডেস্ক: মৃত্যুর কয়েক ঘণ্টা পরই মিশরের প্রথম গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মুরসির দাফন সম্পন্ন করা হয়েছে। এদিকে, তাঁর মৃত্যুর জন্য মিশরের সরকারকে দায়ী করে নিরপেক্ষ তদন্তের আহ্বান জানিয়েছে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল। মঙ্গলবার রাজধানী কায়রোর পূর্বাঞ্চলে মুসলিম ব্রাদার্স হুডের অন্যান্য নেতার কবরের পাশে দাফন করা হয় মোহাম্মদ মুরসিকে।
শেষ বিদায়ের সময় তাঁর ছেলেসহ পরিবারের অনান্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। মুরসির ছেলে আব্দুল্লাহ বলেন, বাবাকে তাঁর নিজ বাড়িতে দাফনের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছে সরকার। এদিকে, মুরসির মৃত্যুর জন্য দেশটির সরকার প্রধান জেনারেল আব্দেল ফাত্তাহ আল সিসিকে দায়ী করছে মানবাধিকার সংস্থাগুলো। সঠিক চিকিৎসার অভাবে তাঁর মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের।
মুরসির মৃত্যুর জন্য নিরপেক্ষ তদন্তেরও দাবি জানিয়েছে সংস্থাটি। সোমবার আদালতে শুনানি চলাকালে অজ্ঞান হয়ে পড়ার কিছুক্ষণ পরই মারা যান তিনি। হার্ট অ্যাটাকে তাঁর মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিলো ৬৭ বছর। ২০১২ সালে মিসরের জনগণের প্রত্যক্ষ ভোটে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন মুহাম্মদ মুরসি। পরে এক বছরের মাথায় ২০১৩ সালে কথিত গণবিক্ষোভের মুখে মুরসিকে ক্ষমতাচ্যুত করে ক্ষমতায় আসেন তৎকালীন সেনা প্রধান জেনারেল আব্দেল ফাত্তাহ আল সিসি।

RSS
EMAIL
Facebook20
Facebook
Google+20
Google+
http://newsmediabd24.com/%E0%A6%B8%E0%A6%A0%E0%A6%BF%E0%A6%95-%E0%A6%9A%E0%A6%BF%E0%A6%95%E0%A6%BF%E0%A7%8E%E0%A6%B8%E0%A6%BE%E0%A6%B0-%E0%A6%85%E0%A6%AD%E0%A6%BE%E0%A6%AC%E0%A7%87-%E0%A6%AE%E0%A7%81%E0%A6%B0%E0%A6%B8">
Twitter20
Visit Us
YouTube20
PINTEREST
LINKEDIN