সোমবার, ডিসেম্বর ১৮, ২০১৭, ৬:১৭ অপরাহ্ণ

দেশের শীর্ষস্থানীয় ওষুধ কোম্পানি এসকেএফ ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড বাজার প্রতিযোগিতায় সেরা হওয়ার লক্ষ্য নিয়ে এগোচ্ছে। ঢাকায় ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় (আইসিসিবি) সম্প্রতি অনুষ্ঠিত কোম্পানির বার্ষিক সম্মেলনে এ কথা বলা হয়েছে।

এবারের সম্মেলনে প্রতিপাদ্য ছিল ‘উইন দ্য রেস থ্রো রিপিটেড অ্যাকশন উইথ কারেজ অ্যান্ড এথিকস’ বা ‘সাহসিকতা ও নৈতিকতার সঙ্গে পুনঃ পুনঃ পদক্ষেপ নিয়ে প্রতিযোগিতায় সেরা হওয়া’। সেই লক্ষ্যে আগামী ২০১৮ সালে কোম্পানিকে এগিয়ে নেওয়ার অঙ্গীকার করেন এসকেএফের গোটা কর্মী বাহিনী। দেশে ব্যতিক্রমী সাহসের প্রতিচ্ছবি ও বন্ধুদের জন্য সর্বোচ্চ আত্মত্যাগের দৃষ্টান্ত স্থাপনকারী তরুণ ফারাজ আইয়াজ হোসেনের অমিত সাহস এবং ট্রান্সকম গ্রুপ ও এসকেএফের চেয়ারম্যান লতিফুর রহমানের নৈতিক মূল্যবোধের অবিচল প্রেরণায় ৪ হাজার জনবলের এই কর্মী দল দারুণ উজ্জীবিত এবং কোম্পানির প্রবৃদ্ধি অব্যাহত রাখতে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ। ২০১৬ সালের ১ জুলাই রাতে রাজধানীর হোলি আর্টিজান বেকারিতে জঙ্গিদের ভয়াবহ হামলার সময়ে বন্ধুদের ত্যাগ না করে তাঁদের পাশে থাকতে গিয়ে তরুণ ফারাজ শহীদ হন।

অনুষ্ঠানে শহীদ ফারাজের মহান আত্মত্যাগের সমুজ্জ্বল আদর্শ তুলে ধরে বক্তব্য দেন তাঁর বড় ভাই যারেফ আয়াত হোসেন। তিনি ফারাজ হোসেন ফাউন্ডেশনের নেওয়া বিভিন্ন পদক্ষেপ এবং তাঁর সাহসিকতা, বন্ধুত্ব ও মানবিকতার আলোকে কর্মীদের উদ্দেশে অনুপ্রেরণামূলক বক্তব্য দেন।

সম্মেলনে ট্রান্সকম গ্রুপ ও এসকেএফ ফার্মাসিউটিক্যালসের চেয়ারম্যান লতিফুর রহমানসহ কোম্পানির পরিচালক শাহনাজ রহমান, আতিকুর রহমান, আরশাদ ওয়ালিউর রহমান ও শাজরেহ হক এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সিমিন হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

এ ছাড়া কোম্পানির বিক্রয় ও বিপণন পরিচালক মোহাম্মদ মুজাহিদুল ইসলাম, টেকনিক্যাল সার্ভিসেসের পরিচালক ইখতিয়ার হোসেন, বিপণনপ্রধান বিনয় দাস, বিক্রয়প্রধান এ বি সিদ্দিক ও আন্তর্জাতিক ব্যবসায়ের প্রধান রাজাসেকর বক্তব্য দেন।

লতিফুর রহমান বলেন, ‘সর্বোচ্চ ফল পেতে আমাদের সাহস ও নৈতিকতার সঙ্গে এবং সর্বোত্তম প্রচেষ্টায় কাজের ধারাবাহিকতা অক্ষুণ্ন রাখতে হবে।’

সম্মেলনে লতিফুর রহমান ও সিমিন হোসেন ট্রান্সকম ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি ও এসকেএফ ফার্মাসিউটিক্যালসের সেরা কর্মীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন। বিজ্ঞপ্তি