স্বর্ণের দাম কমেছে

নিউজ মিডিয়া ২৪: ঢাকা : দেশের বাজারে সবধরনের স্বর্ণের দাম কমানো হয়েছে। প্রতি ভরি স্বর্ণে সর্বোচ্চ এক হাজার ২৮২ টাকা পর্যন্ত কমিয়ে নতুন দর নির্ধারণ করেছে স্বর্ণ ব্যবসায়ীদের সংগঠন বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস)। রোববার এক বিজ্ঞপ্তিতে বাজুস এ তথ্য জানিয়েছে। আগামীকাল সোমবার (১৯ মার্চ) থেকে নতুন এ দর কার্যকর হবে বলে জানিয়েছে সংগঠনটি।আন্তর্জাতিক বাজারে স্বর্ণের দাম কমায় দেশের বাজারে তা সমন্বয় করতে এ দাম কমানো হয়েছে বলে দাবি করেছেন স্বর্ণ ব্যবসায়ীরা। নতুন দাম অনুযায়ী, ভরিপ্রতি সর্বনিম্ন ৯৯১ টাকা থেকে সর্বোচ্চ এক হাজার ২৮২ টাকা পর্যন্ত কমানো হয়েছে। তবে অপরিবর্তিত রয়েছে রুপার দাম।

বাজুস জানায়, বর্ধিত দাম অনুযায়ী প্রতি ভরি (১১ দশমিক ৬৬৪ গ্রাম) ভালো মানের অর্থাৎ ২২ মানের প্রতি ভরি স্বর্ণের দাম পড়বে ৫০ হাজার ৯৭১ টাকা। ২১ ক্যারেট ৪৮ হাজার ৬৯৭ টাকা এবং ১৮ ক্যারেট স্বর্ণ বিক্রি হবে ৪৩ হাজার ৬২৩ টাকায়। সনাতন পদ্ধতির স্বর্ণের ভরি কমে দাঁড়াবে ২৬ হাজার ৪১৮ টাকা। প্রতি ভরি ২১ ক্যারেট রুপা (ক্যাডমিয়াম) দাম নির্ধারণ করা হয়েছে এক হাজার ৫০ টাকা।

অর্থাৎ আগামীকাল সোমবার থেকে প্রতি ভরি ২২ ক্যারেট স্বার্ণের দাম কমবে এক হাজার ২৮২ টাকা, ২১ ক্যারেটে এক হাজার ২২৫ টাকা, ১৮ ক্যারেটে এক হাজার ৫০ টাকা এবং সনাতন পদ্ধতির স্বর্ণ ভরিতে কমবে ৯৯১ টাকা।

সারাদেশের স্বর্ণের দোকানগুলোতে আজ (১৮ মার্চ) পর্যন্ত ২২ ক্যারেটের মানের প্রতি ভরি স্বর্ণের দাম নির্ধারণ রয়েছে ৫২ হাজার ২৫৪ টাকা। ২১ ক্যারেট ৪৯ হাজার ৯২২ টাকা এবং ১৮ ক্যারেট স্বর্ণ বিক্রি হচ্ছে ৪৪ হাজার ৬৭৩ টাকায়। সনাতন পদ্ধতির স্বর্ণের ভরি ২৭ হাজার ৪১০ টাকা। এছাড়াও প্রতি ভরি ২১ ক্যারেট রুপার (ক্যাডমিয়াম) দাম নির্ধারণ করা হয়েছে এক হাজার ৫০ টাকা।

বাজুসের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ কুমার আগরওয়ালা জানান, দেশের স্বর্ণের দাম আন্তর্জাতিক বাজারে সঙ্গে ওঠানামা করে। আন্তর্জাতিক বাজারে দাম কমেছে। তাই বিশ্ববাজারের সঙ্গে সমন্বয় করতে দেশের বাজারেও দাম কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাজুস।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *