বৃহস্পতিবার, জুন ২৮, ২০১৮, ১২:০৬ পূর্বাহ্ণ

ঢাকা : বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে এমপিওভুক্তির বিষয়ে ১ জুলাই থেকে বরাদ্দ শুরু হবে বলে সংসদকে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। আগামী অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর জাতীয় সংসদে সংসদ সদস্য, বিরোধীদলীয় নেতা এবং প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য শেষে বক্তব্য রাখাকালে এ কথা জানান মুহিত।

চলতি বছরের শুরু থেকেই এমপিওর বাইরে থাকা শিক্ষক-কর্মচারীরা আন্দোলন শুরু করেন। আর জানুয়ারি মাসে রাজধানীতে অবস্থান এবং পরে অনশন শুরু করেন তারা। এরপর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে তাদের দাবি মেনে নেয়ার আশ্বাস দেয়া হয়।

কিন্তু গত ৭ জুলাই প্রস্তাবিত বাজেটে এমপিওভুক্তির বিষয়ে বরাদ্দ রাখা হয়নি। এতে এমপিওর বাইরে থেকে যাওয়া শিক্ষক-কর্মচারীরা আবার কর্মসূচি শুরু করেন। যদিও শিক্ষামন্ত্রী আশ্বস্ত করেন, বাজেটে বরাদ্দ না থাকলেও এমপিওভুক্তিতে কোনো সমস্যা হবে না। কিন্তু আন্দোলনকারীরা এতে আস্থা পাচ্ছিলেন না।

অবশেষে অর্থমন্ত্রী বিষয়টি নিয়ে স্পষ্ট করলেন। তিনি বলেন, ‘আগামী ১ জুলাই থেকে এমপিওখাতে বরাদ্দ দেয়া শুরু হবে।’ এমপিও ব্যবস্থাটি পরিবর্তনের উদ্যোগ নেয়ার কথাও জানান মন্ত্রী। বলেন, ‘এজন্য প্রত্যেক এলাকায়ে কিছু বরাদ্দ দেয়া হবে।’

জরাজীর্ণ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো ভেঙে নতুন প্রতিষ্ঠান গড়া এবং ছাত্রদের ভিড় কমানোর জন্য নতুন শ্রেণিকক্ষ নির্মাণের কথাও জানান মন্ত্রী। বলেন, ‘শুধু শিক্ষক-কর্মচারীদের এমপিওভুক্তি করলে চলবে না। এগুলোও করতে হবে।’ শিক্ষা ও স্বাস্থ্যখাতে বরাদ্দ প্রয়োজনের তুলনায় কম স্বীকার করে ভবিষ্যতে এই দুই খাতে বরাদ্দ বাড়ানোর আশ্বাসও দেন অর্থমন্ত্রী। বলেন, ইচ্ছা থাকলেও এখন সামর্থের অভাবে এটা তিনি করতে পারছেন না।