শনিবার, জুলাই ২০, ২০১৯, ২:১৯ পূর্বাহ্ণ

নিউজ মিডিয়া ২৪: ঢাকা : গত ১৩ জুলাই কারাবন্দি চিকিৎসাধীন দলীয় চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বিভাগীর শহরে সমাবেশের করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল বিএনপি। এর অংশ হিসেবে গতকাল ১৮ জুলাই বরিশালে সফল সমাবেশ করে দলটি। ২০ জুলাই চট্টগ্রাম ও ২৫ জুলাই খুলনা সমাবেশ করবে দলটি। কিন্তু ১৯ জুলাই বিকেল পর্যন্ত সমাবেশের অনুমতি দেয়া হয়নি পুলিশের পক্ষ থেকে। ফলে বিএনপির নেতাকর্মীদের মধ্যে এক ধরনের অনিশ্চয়তা দেখা দেয়। আজ কিন্তু সন্ধ্যায় ২৭ শর্তে বিএনপিকে চট্টগ্রামে সমাবেশ করার অনুমতি দেয়া হয়েছে বলে পুলিশের একটি সূত্রে জানা গেছে।
এর আগে শনিবার (১৩ জুলাই) সন্ধ্যায় গুলশানে বিএনপির চেয়ারপারসন রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর তিন বিভাগে সমাবেশের তারিখ ঘোষণা করেন। এরআগে ওইদিন বিকেল ৫ টা থেকে সন্ধ্যা সোয়া ৭টা পর্যন্ত বিএনপির স্থায়ী কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হয় । বৈঠক লন্ডনে অবস্থানরত বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান স্কাইপে যুক্ত ছিলেন। বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘৩০ জুলাইয়ের মধ্যে বাকি বিভাগীয় শহগুলোর সমাবেশের তারিখ ঠিক করা হবে।’
আজ (১৯ জুলাই) বিএনপির স্থায়ী কমিটির এক সভায় ঈদের আগেই দলীয় চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে আট বিভাগীর শহরে সমাবেশ করার সিদ্ধান্ত নেয় দলটি। আগামী ১৮ জুলাই বরিশাল বিভাগ থেকে এই সমাবেশ শুরু হয়। এরপর ২০ জুলাই চট্টগ্রাম ও ২৫ জুলাই হবে খুলনায়। বাকি বিভাগে শিগগিরই সমাবেশের তারিখ চূড়ান্ত করা হবে।
শুক্রবার স্থায়ী কমিটির বৈঠক শেষে সংবাদ সম্মেলনে এ সিদ্ধান্তের কথা জানান দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। রাজধানীর গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে স্থায়ী কমিটির এই বৈঠক হয়। বৈঠকে লন্ডন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত ছিলেন দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান।
বিএনপি মহাসচিব বলেন, আমাদের দলের চেয়ারপারসন দেশনেত্রী খালেদা জিয়া দীর্ঘকাল ধরে কারারুদ্ধ রয়েছেন এবং চিকিৎসার জন্য এখন হাসপাতালে রয়েছেন। কিন্তু আমরা খোঁজখবর নিয়ে জেনেছি, তার স্বাস্থ্যের কোনো উল্লেখযোগ্য উন্নতি দেখছি না।
‘তার শারীরিক যেসব সমস্যা ছিলো তার কোনো সমাধানই হয়নি। উপরন্তু সমস্যা বেড়েই চলেছে। সে কারণে আমরা অবিলম্বে দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার মুক্তি ও তার সুচিকিৎসার ব্যবস্থার জন্য জোর দাবি জানাচ্ছি।’
বন্যা দূর্গতদের পাশে দাঁড়াতে দলের সর্বস্তরের নেতা-কর্মীদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, অতি সম্প্রতি বাংলাদেশে অতিবৃষ্টি ও ভারত থেকে ছেড়ে দেয়া পানির ফলে যে বন্যার সৃষ্টি হয়েছে সেই বিষয়ে স্থায়ী কমিটির বৈঠকে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়েছে।
‘আমরা অবিলম্বে বন্যাপীড়িত দূর্গত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য দলের সর্বস্তরেরে নেতা-কর্মীদের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি। দলের কেন্দ্রীয় ত্রাণ যে কমিটি আছে তাকে সক্রিয় করে দূর্গত এলাকায় ত্রাণ সামগ্রী পাঠানোর কার্য্ক্রম শুরু করাও সিদ্ধান্ত হয়েছে বৈঠকে।’

RSS
EMAIL
Facebook20
Facebook
Google+20
Google+
http://newsmediabd24.com/%E0%A7%A8%E0%A7%AD-%E0%A6%B6%E0%A6%B0%E0%A7%8D%E0%A6%A4%E0%A7%87-%E0%A6%9A%E0%A6%9F%E0%A7%8D%E0%A6%9F%E0%A6%97%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%BE%E0%A6%AE%E0%A7%87-%E0%A6%B8%E0%A6%AE%E0%A6%BE%E0%A6%AC">
Twitter20
Visit Us
YouTube20
PINTEREST
LINKEDIN