গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে অনিয়ম নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র উদ্বেগ

নিউজ মিডিয়া ২৪:ঢাকা: গত মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ভোটারদের ভয়ভীতি দেখানো ও অনিয়ম নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র উদ্বগ্ন বলে জানিয়েছেন ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্শা বার্নিকাট।
বৃহস্পতিবার বেলা সোয়া ১১ টার দিকে জাতীয় প্রেস ক্লাবে একটি অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা জানান।
বার্নিকাট বলেন, গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে সকলের জন্য সমান সুযোগ ছিল না।
তিনি বলেন, ভোটারদেরকে ভয়ভীতি দেখানো, বিরোধীদলের পোলিং এজেন্টদের হয়রানি ও ভোটগ্রহণে অনিয়মের বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্র উদ্বিগ্ন। সরকারের সুষ্ঠু নির্বাচনের অঙ্গিকার দেখতে চায় যুক্তরাষ্ট্র।

আদালতেখালেদা জিয়ার ফের কাস্টডি ওয়ারেন্ট

নিউজ মিডিয়া ২৪:ঢাকা: কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া অসুস্থ। এ কারণে তাকে পার্শ্ববর্তী বিশেষ আদালতে পাঠাতে পারেনি কারা কর্তৃপক্ষ।
জানা গেছে, জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় আজ বৃহস্পতিবার সকালে বকশীবাজারে কারা অধিদফতরের প্যারেড মাঠে স্থাপিত বিশেষ জজ আদালত-৫ এ খালেদা জিয়াকে হাজিরের নির্দেশ দিয়েছিলেন আদালত।
তবে কারা কর্তৃপক্ষ খালেদা জিয়াকে না পাঠিয়ে বিচারক ড. আক্তারুজ্জামানের আদালতে কাস্টডি ওয়ারেন্ট পাঠায়।
আদালতের পেশকার মোকাররম হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, খালেদা জিয়াকে অসুস্থতার কারণে আদালতে হাজির করেনি কারা কর্তৃপক্ষ। কাস্টডি ওয়ারেন্ট বলা হয়েছে- ‘নট ফিট ফর টু ডে’।
দুদকের করা জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট এ দুটি মামলারই প্রধান আসামি বিএনপি চেয়ারপারসন। জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় মোট আসামি চারজন।
আসামিদের মধ্যে জামিনে থাকা দুই আসামি জিয়াউল ইসলাম মুন্না ও মনিরুল ইসলাম খান আত্মপক্ষ সমর্থন করে আদালতে লিখিত বক্তব্য জমা দিয়েছেন। হারিছ চৌধুরী মামলার শুরু থেকেই পলাতক। এ মামলায় সাক্ষ্য দিয়েছেন ৩২ জন।
এর আগে ২২ ফেব্রুয়ারি এ মামলায় দুদকের পক্ষ থেকে প্রোডাকশন ওয়ারেন্ট জারির আবেদন করা হয়। দুদকের করা ওই আবেদনের ওপর ২৬ ফেব্রুয়ারি শুনানি হয়। শুনানি শেষে ১৩ মার্চ খালেদা জিয়াকে হাজিরের নির্দেশ দেন আদালত।
এর পর ২৮ মার্চ ও ৫ এপ্রিল খালেদা জিয়াকে হাজিরের দিন ধার্য থাকলেও শারীরিক অসুস্থতার জন্য তাকে হাজির করা হয়নি বলে আদালতকে জানায় কারা কর্তৃপক্ষ।
এর আগে চলতি বছরের ৩০ জানুয়ারি এ মামলায় খালেদা জিয়াসহ সব আসামির সর্বোচ্চ সাজা অর্থাৎ সাত বছর কারাদণ্ড দাবি করে দুদক প্রসিকিউশন।
জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্টের নামে অবৈধভাবে ৩ কোটি ১৫ লাখ ৪৩ হাজার টাকা লেনদেনের অভিযোগে ২০১০ সালের ৮ আগস্ট রাজধানীর তেজগাঁও থানায় মামলাটি করে দুদক।
তদন্ত শেষে ২০১২ সালের ১৬ জানুয়ারি খালেদা জিয়াসহ চারজনকে আসামি করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করা হয়। এর পর ২০১৪ সালের ১৯ মার্চ অভিযোগ গঠনের মধ্য দিয়ে আসামিদের বিচার শুরু হয়।
খালেদা জিয়া ছাড়া মামলার অপর আসামিরা হলেন- তার সাবেক রাজনৈতিক সচিব হারিছ চৌধুরী, হারিছ চৌধুরীর তৎকালীন সহকারী একান্ত সচিব জিয়াউল ইসলাম মুন্না ও ঢাকার সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার একান্ত সচিব মনিরুল ইসলাম খান।

বিশ্বকাপ ফুটবলে আত্মহত্যা করেছে জার্মানি

নিউজ মিডিয়া ২৪:ডেস্ক: বিশ্বকাপ ফুটবলে আত্মহত্যা করেছে জার্মানি। বিশ্বচ্যাম্পিয়ন এই দলটি যেভাবে দক্ষিণ কোরিয়ার কাছে হেরেছে তাকে আত্মহত্যা ছাড়া আর কিই বা বলা যায়! বিশ্বকাপের আসরে গ্রুপ পর্যায় থেকে দেশটি বাতিল হয় নি কতদিন তা হিসেবে করতে গেলে পরিসংখ্যানের বই নিয়ে বসতে হবে। তবে যতদূর জানা যায়, তাতে ১৯৩৮ সালে প্রথম এমন ঘটনা ঘটেছিল। তারপর চার বারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন জার্মানিকে প্রথম রাউন্ডে এভাবে বিশ্বকাপের আসর ছেড়ে বের হতে হয় নি। রেফারি শেষ বাঁশি বাজানোর সঙ্গে সঙ্গে যেন জার্মানির দুর্গ তাসের ঘরের মতো ধসে পড়ে। কেউ মাথা তুলে তাকাতে পারছেন না।
গ্যালারিতে পিনপতন নীরবতা ভক্তদের মধ্যে। অঝোরে কাঁদছেন অসংখ্য ভক্ত। তাদের ওপর ক্যামেরা যখন ফোকাস করা হচ্ছিল তখন দেখা যাচ্ছিল গন্ড বেয়ে বহমান ¯্রােতা নদীর মতো ঝরছে অশ্র“। তখন জার্মানিতে কি হয়েছিল সে খবর এখনও মিডিয়ায় আসে নি। জার্মানির ভিতরে নাগরিকরা নিশ্চয় এমন পরিণতি মেনে নিতে পারেন নি। ফলে বহু বছর পর তাদের কাছে বুধবার দিবাগত রাতটা ছিল বীভিষিকাময়। হয়তো ঘুমের ঘোরে আৎকে উঠেছেন তারা। গতিময় আর কৌশলী খেলায় যে জার্মানি বিশ্বজুড়ে নিজের নাম পাকাপোক্ত করেছে, ব্রাজিলের পর সর্বোচ্চ বেশি বার বিশ্বকাপ হাতে নেয়ার গৌরব অর্জন করেছে, তাদের সেই নৈপুণ্যের কারণে বাংলাদেশ সহ সারাবিশ্বে তাদের কোটি কোটি ভক্ত। শেষ বাঁশি বাজার সঙ্গে সঙ্গে এই অগণিত ভক্তের হৃদয়ও ভেঙে গেছে। কেউ প্রকাশ্যে কেঁদেছেন। কেউ আড়ালে আবডালে গিয়ে কেঁদেছেন। তাদের শরীর যেন ক্ষোভে, কষ্টে পুড়ে যাচ্ছিল। এমন ঘটনাকে আত্মহত্যা ছাড়া আর কি বলা যায়! এ নিয়ে শুরু হয়েছে বিশ্লেষণ। সবচেয়ে অভিজ্ঞ, দক্ষ খেলোয়াড় থাকা সত্ত্বেও কেন জার্মানি এভাবে নেতিয়ে পড়লো। বিশেষ করে শেষ মুহূর্তে যে গোলটি হয় তার জন্য দায়ী কে! জার্মানির গোলকিপার ম্যানুয়েল ন্যুয়ার কেন নিজের স্থান ছেড়ে বিরোধী পক্ষের ডি-বক্সের সামনে! আক্রমণভাবে তো ১০ জন খেলোয়ার ছিলেনই। তাদের দায়িত্ব বিপক্ষের জালে বল পাঠানো। তাদের চেয়ে তিনি বেশি কৌশলী হয়ে গেলেন! তাই নিজের গোলপোস্ট ফাঁকা রেখে তিনি চলে গেলেন ডি-বক্সের সামনে। আর তারপর যা হবার তা তো সবাই দেখেছেনই। এটাকে কি আত্মহত্যা বলা যায় না! ২০১৪ সালে ব্রাজিলে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপ ফুটবল চ্যাম্পিয়ন হয় জার্মানি। তখন তাদের দলের নেতৃত্বে ছিলেন ফিলিপ লাম, মিরোস্লাভ ক্লোসে, বাস্তিয়ান শয়েনস্টেইগার। তখন তারা তাদের কৌশল প্রদর্শন, আধিপত্য বিস্তারে সক্ষম ছিলেন। কিন্তু তাদের মধ্যে যে শক্তিমত্তা ছিল তা এবারকার টিমে ছিল না। ক্লোসেকে রাখা হয়েছিল এমন একটি পজিশনে যেখান থেকে তিনি গোলে বল পাঠিয়ে দিতে পারেন। শয়েনস্টেইগার ছিলেন ডিফেন্সে। তাকে অতিক্রম করে ডিবক্সে ঢোকা ছিল দুঃসাধ্য কাজ। আর নেতৃত্বে, দল পরিচালনা, আক্রমণভাগের নেতৃত্বে ছিলেন ক্যাপ্টেন লাম। সেই জার্মানি একই ধারায় খেলেছে রাশিয়ায়। কিন্তু তাদের ব্যক্তিগত পারফরমেন্সে ঘাটতি ছিল। যারা অবসরে গিয়েছেন তারা ছিলেন বিধ্বস্ত।

ব্রাজিলের বিপক্ষে আজ মাঠে নামছে সার্বিয়া

নিউজ মিডিয়া ২৪: ডেস্ক: ব্রাজিলের বিপক্ষে আজ মাঠে নামছে সার্বিয়া। কোচ তিতে আজকের ম্যাচে ব্রাজিলের একাদশ ঘোষণা করেছে। কোস্টারিকার বিপক্ষে জয়ের পর গ্রুপ ই-এর অপর ম্যাচে রাত ১২টায় নামবে সেলেসাওরা।

তিতে একাদশ নির্বাচন নিয়ে নিজের পরিকল্পনার কথা জানালেন এভাবেই, ‘সার্বিয়ার বিপক্ষে দল নিয়ে কোনও পরিবর্তন আসবে না। আগের ম্যাচে যারা খেলেছিল ওরাই থাকবে।’ তবে পরিবর্তন কিন্তু থাকবে একটি! আর সেটা হলো নেতৃত্বে। তিতের রোটেশন পদ্ধতির এই নিয়মে আজকে আর্মব্যান্ড পরবেন আরেক ডিফেন্ডার মিরান্দা। আগের ম্যাচে পরেছিলেন থিয়াগো সিলভা।

আজকের ম্যাচে একটি পয়েন্ট পেলেই শেষ ষোলো নিশ্চিত করবে ব্রাজিল। তাই এই মুহূর্তে জয় ছাড়া ভিন্ন কোনও চিন্তা নেই ব্রাজিল কোচ তিতের, ‘আমরা এ নিয়ে চিন্তা করতে পারি না। আসলে করছিও না। এটাই আপনাদের নিশ্চিত করতে পারি। আর আমার প্রত্যাশা কিন্তু এখন শীর্ষেই অবস্থান করছে।’

৩ সিটিতে জোটগতভাবেই অংশ নেবে ২০ দল

নিউজ মিডিয়া ২৪: ঢাকা : বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট আন্দোলনের অংশ হিসাবেই ঐক্যবদ্ধভাবে জোটগতভাবে ৩ সিটি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে।

বুধবার বিকেল সাড়ে ৪টায় গুলশানে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক কার্যালয়ে এ বৈঠক শুরু হয়ে শেষ হয় বিকেল সাড়ে ৫টায়।

বৈঠক শুরু হওয়ার কিছুক্ষণ পরই বের হয়ে যান জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য মাওলানা আব্দুল হালিম। তিনি ‘সিলেটে নিজ দলের মেয়র প্রার্থীর প্রতিদ্বন্দ্বিতার কথা বৈঠকে বিএনপি মহাসচিবকে জানিয়ে বৈঠক থেকে বের হয়ে যান বলে সূত্র জানিয়েছে।’ পরে অন্য দলেগুলো জোটবদ্ধ নির্বাচনের পক্ষে মত দেন।

২০ দলীয় জোটের সভায় উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টি (জাফর) মহাসচিব মোস্তফা জামাল হায়দার, কল্যাণ পার্টি চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহম্মদ ইবরাহিম বীরপ্রতীক, এলডিপি মহাসচিব ড. রেদোয়ান আহমেদ, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব শাহাদাত হোসেন সেলিম, বাংলাদেশ ন্যাপ চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি, এনডিপি চেয়ারম্যান খোন্দকার গোলাম মোর্ত্তজা, এনপিপি চেয়ারম্যান ড. ফরিদুজ্জামান ফরহাদ, খেলাফত মজলিশ মহাসচিব ড. আহমেদ আবদুল কাদের, জাগপা সাধারণ সম্পাদক খন্দকার লুৎফর রহমান, বিজেপি ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব আবদুল মতিন সাউদ, ডিএল সাধারণ সম্পাদক সাইফুদ্দিন আহমেদ মনি, লেবার পার্টি (একাংশ) চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, (অপরাংশ) চেয়ারম্যান এমদাদুল হক চৌধুরী, মহাসচিব হামদুল্লাহ আল মেহেদী, বিএমএল মহাসচিব শেখ জুলফিকার বুলবুল চৌধুরী, ইসলামী ঐক্যজোটের মহাসচিব অধ্যাপক আবদুল করিম, পিপলস লীগ মহাসচিব সৈয়দ মাহবুব হোসেন, ইসলামিক পার্টি মহাসচিব অ্যাডভোকেট আবুল কাশেম, সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক কমরেড সাঈদ আহমেদ, জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম (একাংশ) মহাসচিব মাওলানা নূর হোসেন কাশেমী, (অপরাংশ) সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব মুফতী মুহিউদ্দিন ইকরাম প্রমুখ।

বাংলাদেশ ন্যাপ চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি বলেছেন, আন্দোলনের অংশ হিসাবেই নির্বাচনে অংশগ্রহণ করা উচিত ও করতে হবে। বিনা চ্যালেঞ্জে কোনো নির্বাচন ছাড় দেয়া উচিত হবে না। প্রমাণ করতে করতে হবে নৌকার বিপরীতে ধানের শীষই হচ্ছে জনগণের প্রতীক।

এলডিপি সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব শাহাদাত হোসেন সেলিম জানান, ‘৩ সিটি নির্বাচনে ধানের শীষের প্রার্থী জোটের প্রার্থী। তিনি জামায়াত ও খেলাফত মজলিশের প্রতি অনুরোধ করেছেন জোটের স্বার্থে নিচেদের প্রার্থী না দেবার জন্য।’

জানা গেছে সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনের বিষয় চুড়ান্ত কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। সিলেটে মেয়র প্রার্থী দেয়ার দাবি জানিয়েছে ২০ দলীয় জেটের শরিক দল বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী। তাই এই সিটি নিয়ে জেটের সিদ্ধান্ত পরবর্তীতে জানানো হবে।

শনিবার আ’লীগের বিশেষ বর্ধিত সভা

নিউজ মিডিয়া ২৪: ঢাকা : ৩০ শনিবার সকাল ১১টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এমপি’র সরকারি বাসভবন গণভবনে আওয়ামী লীগের এক বিশেষ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হবে। সভায় সভাপতিত্ব করবেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা।

সভায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদ, উপদেষ্টা পরিষদ, রাজশাহী, বরিশাল, সিলেট ও চট্টগ্রাম বিভাগের অধীন প্রতিটি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচিত দলীয় চেয়ারম্যান, মহানগরের অধীন সংগঠনের প্রতিটি ওয়ার্ডের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও দলীয় নির্বাচিত কাউন্সিলরগণ এবং জেলা পরিষদের নির্বাচিত দলীয় সদস্যগণ উপস্থিত থাকবেন।

জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকগণকে সংশ্লিষ্ট জেলা/মহানগরের অধীন ইউনিয়ন, ওয়ার্ড ও চেয়ারম্যান, কাউন্সিলার এবং জেলা পরিষদের সদস্যদের নামের তালিকা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমন্ডিস্থ কার্যালয়ে প্রেরণ এবং বর্ধিত সভায় সকলকে সাথে নিয়ে উপস্থিত থাকার জন্য আহ্বান জানানো যাচ্ছে।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এমপি সংশ্লিষ্ট সকলকে এই বর্ধিত সভায় যথাসময়ে উপস্থিত থাকার জন্য বিনীত অনুরোধ জানিয়েছেন। আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে আজ এতথ্য জানানো হয়।

১ জুলাই থেকে এমপিওতে বরাদ্দ: অর্থমন্ত্রী

ঢাকা : বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে এমপিওভুক্তির বিষয়ে ১ জুলাই থেকে বরাদ্দ শুরু হবে বলে সংসদকে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। আগামী অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর জাতীয় সংসদে সংসদ সদস্য, বিরোধীদলীয় নেতা এবং প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য শেষে বক্তব্য রাখাকালে এ কথা জানান মুহিত।

চলতি বছরের শুরু থেকেই এমপিওর বাইরে থাকা শিক্ষক-কর্মচারীরা আন্দোলন শুরু করেন। আর জানুয়ারি মাসে রাজধানীতে অবস্থান এবং পরে অনশন শুরু করেন তারা। এরপর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে তাদের দাবি মেনে নেয়ার আশ্বাস দেয়া হয়।

কিন্তু গত ৭ জুলাই প্রস্তাবিত বাজেটে এমপিওভুক্তির বিষয়ে বরাদ্দ রাখা হয়নি। এতে এমপিওর বাইরে থেকে যাওয়া শিক্ষক-কর্মচারীরা আবার কর্মসূচি শুরু করেন। যদিও শিক্ষামন্ত্রী আশ্বস্ত করেন, বাজেটে বরাদ্দ না থাকলেও এমপিওভুক্তিতে কোনো সমস্যা হবে না। কিন্তু আন্দোলনকারীরা এতে আস্থা পাচ্ছিলেন না।

অবশেষে অর্থমন্ত্রী বিষয়টি নিয়ে স্পষ্ট করলেন। তিনি বলেন, ‘আগামী ১ জুলাই থেকে এমপিওখাতে বরাদ্দ দেয়া শুরু হবে।’ এমপিও ব্যবস্থাটি পরিবর্তনের উদ্যোগ নেয়ার কথাও জানান মন্ত্রী। বলেন, ‘এজন্য প্রত্যেক এলাকায়ে কিছু বরাদ্দ দেয়া হবে।’

জরাজীর্ণ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো ভেঙে নতুন প্রতিষ্ঠান গড়া এবং ছাত্রদের ভিড় কমানোর জন্য নতুন শ্রেণিকক্ষ নির্মাণের কথাও জানান মন্ত্রী। বলেন, ‘শুধু শিক্ষক-কর্মচারীদের এমপিওভুক্তি করলে চলবে না। এগুলোও করতে হবে।’ শিক্ষা ও স্বাস্থ্যখাতে বরাদ্দ প্রয়োজনের তুলনায় কম স্বীকার করে ভবিষ্যতে এই দুই খাতে বরাদ্দ বাড়ানোর আশ্বাসও দেন অর্থমন্ত্রী। বলেন, ইচ্ছা থাকলেও এখন সামর্থের অভাবে এটা তিনি করতে পারছেন না।

আনসারের জন্য ৩০ হাজার শর্টগান ও ৩০ লাখ কার্তুজ কেনা হচ্ছে

নিউজ মিডিয়া ২৪: ঢাকা: বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর জন্য ৩০ হাজার শর্টগান কেনা হচ্ছে। এই শর্টগানগুলো হবে ১২ বোর-এর। শর্টগানগুলোর জন্য ৩০ লাখ কার্তুজও একই সঙ্গে ক্রয় করা হচ্ছে। ডিপিএম অর্থাৎ সরাসরি ক্রয় পদ্ধতিতে এই অস্ত্র ও গুলি কেনা হবে।
আজ বুধবার অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটিতে এই ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন করা হয়। সচিবালয়ের মন্ত্রিপরিষদ কক্ষে কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির আহ্বায়ক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের অনুপস্থিতিতে শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু এতে সভাপতিত্ব করেন।

বাংলাদেশের পুঁজিবাজার এখন বিশ্ব বিনিয়োগের অন্যতম আকর্ষণ :প্রধানমন্ত্রী

নিউজ মিডিয়া ২৪: ঢাকা : জবাবদিহিতা ও সুশাসন নিশ্চিতের পদক্ষেপ নেওয়ায় বাংলাদেশের পুঁজিবাজার এখন বিশ্ব বিনিয়োগের অন্যতম আকর্ষণ ও গন্তব্য হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বুধবার জাতীয় সংসদে বাজেট আলোচনায় প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন।

অর্থমন্ত্রীর ভাষণে পুঁজিবাজার না থাকায় কেউ কেউ কথা তুলেছে উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, “পুঁজিবাজার নিয়ে অনেক ঘটনা ঘটে গেছে, এটা নিয়ে সেটা নিয়ে অনেক কিছুই হয়েছে। অর্থমন্ত্রীর ভাষণে নেই বলে কেউ কেউ এটা নিয়ে কথা তুলেছে। যেহেতু পুঁজিবাজার এখন সুষ্ঠভাবে চলছে সেখানে বলার কি আছে।” পুঁজিবাজারের জন্য যা যা করার সবই করা হয়েছে বলে জানান প্রধানমন্ত্রী।

“একটি উন্নত সমৃদ্ধশালী বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে আমরা পুঁজিবাজারকে উন্নয়নের মূল ধারায় সম্পৃক্ত করার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিয়েছি, কাজ করে যাচ্ছি।

তিনি বলেন, “বাংলাদেশের পুঁজিবাজার এখন অব্যাহতভাবে বিশ্ব বিনিয়োগের অন্যতম আকর্ষণ ও গন্তব্য হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে। আমাদের সরকার একটি শক্তিশালি পুঁজিবাজার গড়ে তোলার জন্য ধারাবাহিকভাবে পলিসি সাপোর্ট, আইনগত সংস্কার অবকাঠামো নির্মাণসহ নানাবিধ সহযোগিতা দিয়ে যাচ্ছে।

“শিল্প অবকাঠামো সেবা খাতে অর্থায়নের ক্ষেত্রে পুঁজিবাজারের অবদান দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। পুঁজিবাজারের বিভিন্ন পর্যায়ে অনিয়ম দূর করে জবাবদিহিতা ও সুশাসন নিশ্চিত করার ব্যবস্থা গৃহীত হয়েছে।”

প্রধানমন্ত্রী বলেন, “আমাদের প্রণীত বিধিমালার আলোকে ইতিমধ্যে ভেঞ্চার ক্যাপিটাল ও ইম্প্যাক্ট ফান্ড গঠনের জন্য বাংলাদেশে অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বিনিয়োগকারীদের মধ্যে উদ্দীপনা সৃষ্টি হয়েছে এবং তাদের অংশগ্রহণ বাড়ছে। পুঁজিবাজারের উন্নয়নে যেসব কর্মসূচি নেওয়া হবে তাও তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী।

এসব উদ্যোগের মধ্যে রয়েছে- স্টক এক্সচেঞ্জগুলোতে স্মল ক্যাপ প্ল্যাটফর্মের কার্যক্রম চালু করা, নতুন ফিক্সড ইনকাম ফিন্যান্সিয়াল প্রোডাক্টসহ বন্ড মার্কেটের উন্নয়ন করা।

এছাড়াও ই-ফাইলিং থেকে সর্বস্তরে ডিজিটাল ব্যবস্থা প্রবর্তন, সার্ভেইলেন্স ও তদারিক ব্যবস্থা উন্নয়ন ও জোরদার করার মাধ্যমে পুঁজিবাজারে সুশাসন ও শৃঙ্খলা নিশ্চিত করা এবং বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষকে বিনিয়োগ শিক্ষার মৌলিক বিষয়বস্তু অবহিত করা, বিশ্ব অর্থনীতির ক্রমাগত পরিবর্তনের ফলে নিত্যনতুন বিষয়সমূহ আয়ত্ব করতে কমিশনের কর্মচারীদের দেশে-বিদেশে প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা।

এবারের বাজেটকে চমৎকার আখ্যায়িত করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “এবারের বাজেট আমি যা মনে করি, মাননীয় অর্থমন্ত্রী যে বাজেট দিয়েছেন অত্যন্ত চমৎকার একটা বাজেট, যেটা নিয়ে কেউ কোনো কথা বলতে পারে নাই।

“সকল শ্রেণির মানুষেরই কথা বিবেচনা করে দীর্ঘদিন পরিশ্রম করে তিনি বাজেট উপহার দিয়েছেন। কাজেই এ বাজেট বাস্তবায়নের মধ্যে দিয়ে বাংলাদেশ আরেক ধাপ এগিয়ে যাবে সেটাই আমরা আশা করি। অর্থমন্ত্রীর সুস্বাস্থ্য কামনা করি দীর্ঘজীবী হোন তিনি, আরও বাজেট দিন আমরা সেটাই চাই।”

সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা ৩৫ বছর করার সুপারিশ: সংসদীয় কমিটি

নিউজ মিডিয়া ২৪: ঢাকা : সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা ৩৫ বছর করার সুপারিশ করেছে সংসদীয় কমিটি। পাশাপাশি অবসরের বয়সসীমা ৬৫ করার সুপারিশ করেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি। সুপারিশ বাস্তবায়নে দ্রুত কার্যকর পদক্ষেপ নিতে মন্ত্রণালয়কে বলা হয়েছে। বুধবার (২৭ জুন) দুপুরে জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত বৈঠকে এ সুপারিশ করা হয়।

কমিটির সভাপতি এইচ এন আশিকুর রহমানের সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটির সদস্য এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী, র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী, অ্যাডভোকেট মুস্তফা লুৎফুল্লাহ, খোরশেদ আরা হক ও মো. আব্দুল্লাহ এবং সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠক শেষে কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট মুস্তফা লুৎফুল্লাহ বলেন, সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা বাড়ানোর প্রস্তাবটি দীর্ঘদিন ধরে বিবেচনাধীন ছিল। বৈঠকে বিষয়টি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা শেষে প্রবেশের বয়সসীমা ৩৫ বছর করার সুপারিশ করা হয়েছে। সর্বসম্মতভাবে এ সুপারিশ গ্রহণের পাশাপাশি অবসরের বয়সসীমা ৬৫ বছর করারও পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

কমিটি সূত্র জানায়, সরকারি চাকরিতে প্রবেশ ও অবসরের বয়সসীমা বাড়ানোর বিষয়ে বেশকিছু যুক্তিকে বিবেচনায় নেয়া হয়েছে। এ ক্ষেত্রে উন্নত দেশগুলো তাদের জনগণকে মানবসম্পদে রূপান্তরের ক্ষেত্রে বয়সের কোনো সীমারেখা নির্দিষ্ট করেনি। প্রতিবেশী দেশগুলোতে চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা আমাদের দেশের তুলনায় অনেক বেশি। পশ্চিমবঙ্গে সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়স ৪০, শ্রীলংকায় ৪৫, ইন্দোনেশিয়ায় ৩৫, ইতালিতে ৩৫, ফ্রান্সে ৪০ এবং অনেক দেশে অবসরের আগের দিন পর্যন্ত। আর বাংলাদেশে অবসরের বয়সসীমা ৫৭ থেকে বাড়িয়ে ৫৯ করা হয়েছে। মুক্তিযোদ্ধাদের ক্ষেত্রে আরও দুই বছর বেশি। কিন্তু প্রবেশের বয়সসীমা বাড়ানোর হয়নি।

প্রসঙ্গত সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা বাড়ানোর দাবিতে সাধারণ ছাত্র পরিষদসহ বিভিন্ন সংগঠন আন্দোলন করে আসছে। ইতিপূর্বে জেলা প্রশাসকদের সম্মেলনেও বয়সসীমা বাড়ানোর প্রস্তাব করা হয়। আর সরকার ও বিরোধী দলীয় সংসদ সদস্যরাও ইতিপূর্বে জাতীয় সংসদে প্রস্তাবটি উত্থাপন করে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী বরাবরই এর বিপক্ষে তার অবস্থান ব্যাখ্যা করেছেন। এ নিয়ে সংসদেও তিনি বক্তব্য দিয়েছেন।

বৈঠকে জানানো হয়, ২০১৭-১৮ অর্থবছরে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অধীন দশটি প্রকল্পের বিপরীতে সংশোধিত বাজেটে বরাদ্দকৃত অর্থের পরিমাণ ১৬৩ কোটি ৬৫ লাখ টাকা। গত ১৮ জুন পর্যন্ত এর বাস্তবায়ন অগ্রগতি ৬৩ ভাগ।

আরও জানানো হয়, বর্তমানে বিভিন্ন মন্ত্রণালয়, বিভাগ ও দফতরের বিশেষ অনুরোধে চারজন সচিব, ৩৬ অতিরিক্ত সচিব, ১১১ যুগ্ম সচিব এবং ২০০ উপ-সচিব তিন বছরের অধিককাল ধরে রয়েছেন।